লোহিত সাগরে হামলা বন্ধ হবে না, হুথিদের হুমকি

লোহিত

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় বর্বর হামলার প্রতিবাদে লোহিত সাগরে ইসরায়েলগামী জাহাজে প্রায় প্রতিদিনই হামলা চালাচ্ছে ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীরা। তাদের হামলা বন্ধে সেখানে ১০ দেশকে নিয়ে একটি নিরাপত্তা ফোর্স তৈরি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে হুথিরা হুমকি দিয়েছে, যতক্ষণ গাজায় হামলা অব্যাহত থাকবে ততক্ষণ লোহিত সাগরে তাদের হামলাও অব্যাহত থাকবে।

হুথির জ্যেষ্ঠ নেতা মোহাম্মদ আল-বুখাইতি মাইক্রো ব্লগিং সাইট এক্সে (সাবেক টুইটার) মঙ্গলবার লিখেছেন, ‘যদি পুরো বিশ্বকেও আমেরিকা একত্রিত করতে সমর্থ হয়, আমাদের সামরিক অভিযান বন্ধ হবে না। এর মূল্য যাই হোক; সেটি বিষয় নয়।’ ‘হুথিরা হামলা তখনই থামাবে যখন গাজায় ইসরায়েলের অপরাধ বন্ধ হবে এবং অবরুদ্ধ উপত্যকার মানুষের কাছে খাদ্য, ওষুধ এবং জ্বালানি পৌঁছাবে।’

গাজায় বর্বর বোমা হামলা বন্ধে লোহিত সাগরে ইসরায়েলগামী জাহাজে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে হুথি বিদ্রোহীরা। তাদের এসব হামলার কারণে সেখানে জাহাজ চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে বিশ্বের বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলো। হুথিদের হামলা বন্ধে গতকাল সোমবার ১০ দেশকে নিয়ে নিরাপত্তা ফোর্স তৈরি করেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন।

হুথিদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন এ বাহিনীর কোনো প্রয়োজনীয়তা লোহিত সাগরে নেই। কারণ ইসরায়েলগামী ছাড়া সব জাহাজই সেখানে নিরাপদ। তারা আরও জানিয়েছে, যদি ইসরায়েল গাজায় হামলা বন্ধ করে দেয় তাহলে তারাও হামলা বন্ধ করে দেবে।

লোহিত সাগরে জাহাজ চলাচলে বিঘ্ন ঘটায় আন্তর্জাতিক বাজারে তেলে দাম বেড়ে যাওয়ার শঙ্কা তৈরি হয়েছে। বিশ্বের তেলবাহী জাহাজের বড় একটি অংশ সেখান দিয়েই চলাচল করে।

আরও দেখুন

এ সংক্রান্ত আরও পড়ুন