ওমানের ভুয়া ভিসার কবলে নিঃস্ব চার পরিবার

ওমান-প্রবাসী
ওমানের ভুয়া ভিসার অর্থ যোগাড় করতে গিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছে বরগুনার চার পরিবার। ঋণ করা এসব অর্থ শোধ করতে না পেরে পরিবারের সদস্যরা এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। স্থানীয় ওমান প্রবাসী মিজানুর রহমান ও তার পিতা শানু প্যাদার বিরুদ্ধে এসব অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে।

ভূক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় আমতলী উপজেলার সদর ইউনিয়নের শানু প্যাদা ও ছেলে মিজানুর রহমান প্যাদা ওমান প্রবাসী। ওমানের কয়েকটি কোম্পানিতে সুইপার, গাড়ি চালকসহ বিভিন্ন পদে লোক নেওয়ার কথা বলে ভুয়া ভিসায় আগ্রহীদের ওমানে পাঠায়। এজন্য নিজেদের সহায় সম্বল বিক্রি করে মিজানের হাতে ১৭ লাখ টাকা তুলে দেন বিভিন্ন গ্রামের চারজন।

অর্থ হাতে পেয়ে চারজনকে ভুয়া ভিসায় ওমান নিয়ে যান মিজানুর। এরপর সবাইকে একটি নির্জন ঘরে বিভিন্ন মেয়াদে বন্দি করে রাখা হয়। এসময় তাদের মারধরের পাশাপাশি ঠিকমতো খাবারও দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ রয়েছে। এমনকি তাদের সঙ্গে থাকা সব টাকা-পয়সা হাতিয়ে নেয় সে।

অভিযুক্ত শানু প্যাদা চারজনকে ওমানে নেওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, মালিকের কাজের অনুমতি না পাওয়ায় তারা দেশে চলে এসেছে। তবে ঘরবন্দি করে নির্যাতন করা হয়নি। একজনের টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে। বাকিদের টাকাও ফেরত দেওয়া হবে। আর অভিযোগ পাওয়া গেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে পুলিশ।

আরও দেখুন

এ সংক্রান্ত আরও পড়ুন